Wednesday, June 22, 2011

বাজে মেয়ে মানুষ


মনি বলল "শুভ তুই এত দিন একা একা মস্তি করছিস আর আমাকে বলিস নি কেন?" আমি বললাম "দেখ আমি নিজেও জানতাম না। হটাঠ ঘটনা টা ঘটে গেল"। এর পর এইই নিয়ে আর কোনো চরচা করলাম নাহ। মা ডাকলেন "শুভ খেতে আয়"। কথা না বাড়িয়ে আমি আর মনি খেতে বস্*লাম।
আমার মনে দামামা বাজতে লাগ্*ল, আর দৃশ্য গুলো একের পর এক ভেসে উঠতে লাগ্*ল। এক অদ্ভুত পরিবর্তন আমার চিন্তায় বাসা বাঁধল। নিজেকে ভীষন কামুক মনে হল। আর লজ্জা পেলাম।
নেশার মত প্রত্যেক দিন সুযোগের আসায় বসে থাক্*তাম। আর মৈথুন এর মাত্রা বেড়ে যেতে লাগ্*ল। নিজের অন্তস্বত্তা আমাকে বাঁধা দিত। আর শরীর, মন কোনোটাই আমার নিষেধ মানত না।

দিন যেতে লাগ্*ল এইই ভাবেই। ইচ্ছা করে এক এক দিন সাগর কে আমার বাড়ি ডেকে আনতাম। আমি ওর সাথে ভাব জমানোর চেষ্টা করতাম। মনের উদ্দেশ্য ছিল ওকে উপভোগ করা বা নিজের যৌন্য লালসা চরিতার্থ করা। মাখনের মতন গায়ের রঙ, ঘাড় যেন পাকা গমের শীষ এর মত, আর গায়ে সদ্য কামনা লিপ্ত এক্*টা গন্ধ আমাকে পাগল করে দিত। ওর নিতম্ব এত সুন্দর কখনও কখনও নিজের অজান্তেই আমার হাত ওর পাছায় চলে যেত। নিজেকে সংযত করতে হত। মুক্তর মত দাতঁ আআর হান্সির ঝিলিক দেখলে মনে হত নিজের ঠোঁট দিয়ে লেহন করি আর চুমু খাই বুকের মধ্যে জরিয়ে ধরে। আমার লিঙ্গ কোনো বাধাঁ মানত না। নানা অছিলায় আমার লিঙ্গ ওর শরীরে স্পর্শ করাতাম। আর ওকে ধরার বাহানায় ওর স্তনে হাথ লাগানোর চেষ্টা চলতো।
জানি না ওহ বুঝত কিনা। আর মদন জলে আমি বিব্রত মুখে বাথ্*রুমে শর্টস চেঞ্জ করতাম।
এক দিন বিকেল বেলা কলেজ়ের ক্লাস শেষ করে ক্লান্ত হয়ে আমার পড়ার ঘরে বসে আছি। সাগর হাজির।
"কি গো শুভদা আজ কলেজ় থেকে এত তাড়াতাড়ি" ?
আমি বল্*লাম "নাহ রে সাগর আজ ভীষন ক্লান্ত লাগছে।" মনের ব্যাভিচার কে সাম্*লে রেখে ওকে বল্*লাম-"তুই আজ পড়তে যাস্* নি?"
ও বল্*ল " আজ স্বপন কাকু এসেছে তাই পড়তে যাব না"।
স্বপনদা কে আমি চিনি প্রায় ৪ বছর ধরে। ঊনি খুব ভাল কম্পউন্ডার। যখন সাগরের মার পড়ে গিয়ে হাত ভেঙ্গে যায় তখন উনি এসে ব্যান্ডেজ় করেছিলেন। উনি সম্পর্কে সাগরের কাকু হন। আমাদের ক্লাব এ আড্ডা দেন বলে আমরা ওনাকে স্বপন দা বলি। স্বপন-দা সাগর কে খুব ভালবাসেন আর স্নেহ করেন।
এমন সময় আমি এক্*টা বই সেলফ্* থেকে পাড়ব বলে সেলফ্* এর দিকে এগতেই সাগরের সাথে ধাক্কা লেগে গেল। আমি ইচ্ছা করে আমার হাত টা সাগরের বুকের নরম স্তন দুটো ঘস্টে সামাল দিলাম। সাগর আঃ করে উঠলো ব্যাথায়। আমার সারা শরীরে সিহরন জেগে উঠলো। যেমন রবারের বেলুনে জল ভরে টিপ্*লে অনুভুতি হয় সেরকম। আমার ব্যাভিছারের মাত্রা আস্তে আস্তে ছাড়িয়ে যাচ্ছে।

যৌনতা ও জ্ঞান © 2008 Por *Templates para Você*